• A-AA+
  • NotificationWeb

    Title should not be more than 100 characters.


    0

WeatherBannerWeb

Asset Publisher

গিরিজাত্মজ অষ্টবিনায়ক মন্দির লেনিয়াদ্রি (পুনে)

গিরিজাত্মজ অষ্টবিনায়ক মন্দির লেনিয়াদ্রি ঐতিহাসিক শহর জুন্নারের আশেপাশে অবস্থিত অষ্টবিনায়ক মন্দিরগুলির মধ্যে একটি। গিরিজা (পার্বতীর) আত্মজ (পুত্র) হিসাবে গণেশের একটি নাম অনুসারে মন্দিরটির নামকরণ করা হয়েছে গিরিজাত্মজ।

জেলা/অঞ্চল

পুনে জেলা, মহারাষ্ট্র, ভারত।

ইতিহাস

গুহায় গিরিজাতময় মন্দির অবস্থিত। জুন্নার হল একটি শহর যার আশেপাশে খ্রিস্টপূর্ব ১ম শতাব্দী থেকে খ্রিস্টপূর্ব ৬ষ্ঠ শতাব্দী পর্যন্ত প্রায় ২০০টি বৌদ্ধ গুহা খনন করা হয়েছিল। বিনায়ক গণেশের বর্তমান মন্দিরটি ২য় শতাব্দীর একটি বৌদ্ধ গুহা। বৌদ্ধ বিহারকে গণেশের মন্দিরে রূপান্তর করার জন্য মধ্যযুগীয় সময়ে কেন্দ্রীয় কোষগুলি পরিবর্তন করা হয়েছিল।

মন্দিরে অষ্টভুজাকৃতির স্তম্ভ সহ একটি বিস্তৃত পাথর কাটা বারান্দা রয়েছে। বড় হলটির পাশের দেয়াল বরাবর সমান্তরালভাবে চলমান একটি নিম্ন বেঞ্চ রয়েছে। যখন গুহাটি বৌদ্ধ মঠ হিসাবে কাজ করত তখন বৌদ্ধ ভিক্ষুদের জন্য তৈরি করা অসংখ্য পাথর কাটা ঘর রয়েছে। হলের পাশের দেয়ালে কিছু মধ্যযুগীয় স্মারক পাথর বা বীর পাথরের খোদাই করা আছে। কেন্দ্রীয় কোষগুলি একটি মন্দিরে রূপান্তরিত হয় যেখানে পিছনের দেয়ালে বিনায়কের একটি চিত্র রয়েছে। বিনায়ক গণেশ বা গণপতির একটি রূপ। এই মন্দিরটি একচেটিয়া মন্দির।

এই গুহা-মন্দিরের আশেপাশে আরও কয়েকটি বৌদ্ধ গুহা রয়েছে। এই গুহাগুলির একটি শিলালিপিতে এই স্থানটিকে 'কপিচিত্ত' বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

ভূগোল

লেনিয়াদ্রির মন্দিরটি জুন্নার শহর থেকে প্রায় 8 কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

আবহাওয়া/জলবায়ু

এই অঞ্চলে সারা বছর গরম-আধা শুষ্ক জলবায়ু থাকে যার গড় তাপমাত্রা 19-33 ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এপ্রিল এবং মে এই অঞ্চলের উষ্ণতম মাস যখন তাপমাত্রা 42 ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত পৌঁছায়।

শীতকাল চরম, এবং তাপমাত্রা রাতে 10 ডিগ্রি সেলসিয়াসের মতো কম যেতে পারে, তবে দিনের গড় তাপমাত্রা প্রায় 26 ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এই অঞ্চলে বার্ষিক বৃষ্টিপাত প্রায় 763 মিমি

যা করতে হবে

এই মন্দিরে পৌঁছানোর জন্য প্রায় 300টি ধাপে উঠতে হয়। এই মন্দিরটি বিখ্যাত বৌদ্ধ প্রার্থনা হল গুহার (চৈত্য) পাশের গুহায় অবস্থিত।

নিকটতম পর্যটন স্থান

এখানে অনেক পর্যটক আকর্ষণের জায়গা রয়েছে যেগুলো ঘুরে আসতে পারেন।

  • শিবনেরি দুর্গ (8.1 কিমি)
  • মালশেজ জলপ্রপাত (26.4 কিমি)
  • অষ্টবিনায়ক ওজার মন্দির (14.6 কিমি)
  • নানেঘাট দুর্গ (৩৪ কিমি)
  • হাডসার দুর্গ (১৭.৩ কিমি)
  • কুকাদেশ্বর মন্দির (২৭ কিমি)
  • নিমগিরি ফোর্ট (25.1 কিমি)

বিশেষ খাবারের বিশেষত্ব এবং হোটেল

এখানকার স্থানীয় রেস্তোরাঁয় মহারাষ্ট্রীয় খাবার পাওয়া যাবে।

আবাসন সুবিধা কাছাকাছি এবং হোটেল/হাসপাতাল/পোস্ট অফিস/পুলিশ স্টেশন

মন্দিরের কাছে এবং জুন্নার শহরে বিভিন্ন আবাসন সুবিধা রয়েছে।

  • নিকটতম থানা হল জুন্নার থানা (4.8 কিমি)
  • এই মন্দিরের কাছের হাসপাতালটি হল গ্রামীণ হাসপাতাল জুন্নার (4.8 কিমি)

পরিদর্শনের নিয়ম এবং সময়, দেখার জন্য সেরা মাস

  • মন্দিরটি সকাল 5:00 টা থেকে রাত 8:00 পর্যন্ত খোলা থাকে।
  • প্রবেশ টিকিটের মূল্য ভিন্ন হতে পারে।
  • প্রাইভেট গাড়ি থেকে আসা লোকজনের জন্য পেইড পার্কিং সুবিধা রয়েছে।
  • এই মন্দিরের ভিতরে ছবি তোলার অনুমতি নেই।

এই মন্দির দেখার সেরা সময় জুন থেকে মার্চ।

এলাকায় কথ্য ভাষা

ইংরেজি, হিন্দি এবং মারাঠি।